"ঈদ উৎসবে নতুন পোশাক পরা কী খুব জরুরী ? মহঃ মইদুল ইসলাম রেজবী, দার্জিলিং Maulana Maidul Islam Rizvi

"ঈদ উৎসবে নতুন পোশাক পরা কী খুব জরুরী  ?



মহঃ মইদুল ইসলাম রেজবী, দার্জিলি
ঈদ উৎসব মুসলিমদের জন্য একটি বড় উৎসব যা মহাসমারোহে উদযাপিত হয়ে থাকে । ঈদ সাধারণতঃ দুটি ১/ ঈদুল ফিতর ২/ ঈদুল আযহা । তার মধ্যে ঈদুল ফিতর  দীর্ঘ একটি মাস রমজানের রোজা পালনের পর মহা ধুমধাম করে উদযাপন করা হয় । এবং নতুন পোশাক নতুন সাজে সজ্জিত হয়ে, সুরমা আতর
লাগিয়ে মুসলমানরা ঈদগাহ তে হাজির  হয়ে দুই  রাকাত ওয়াজিব   নামাজ  আদায় করে থাকেন ।  আর এক অপর কে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করার মাধ্যমে পবীত্র ঈদ মোবারকের আনন্দ উপভোগ করে থাকেন । এটা শুধু মাত্র উৎসবই নয় বরং একটি মাস সিয়াম সাধনার পর আল্লাহর তায়ালার কাছ থেকে মজুরি বা পারিশ্রমিক নেবার একটি আনন্দ মুহূর্ত ।
এই পবীত্র মুহূর্তে আল্লাহ তায়ালা অসংখ্য গুনাহগার মানুষের গুনাহ ক্ষমা করে দেন এবং জাহান্নাম থেকে মুক্তি করে থাকেন । যে সমস্ত পূর্ণবাণ ব্যক্তিরা সিয়াম ও ক্বেয়াম সাধনার মাধ্যম   দিয়ে আল্লাহ তায়ালা   কে রাজি ও সন্তুষ্ট করতে পারেন তারাই প্রকৃত অর্থে সফল হয়ে থাকেন । অন্যথা অসফল ব্যক্তিদের জন্য ঈদ প্রকৃত অর্থে খুশি বা আনন্দের নহে । এই মর্মে দ্বিতীয় খলিফা হযরত ওমর ফারুক রাদিয়াল্লাহু আনহুর কান্নার ঘটনা আমাদের জন্য খুবই উপযোগী । একদা ঈদের দিন তিনি ঘরের দরজা বন্ধ করে দিয়ে অঝর নয়নে কান্না করছিলেন, তাঁর কিছু সঙ্গি সাথিরা তিনার বাড়িতে এসে এই অবস্থায় তাঁকে দেখে বললেন, হযরত আজ কে ঈদের  খুশির দিন এই দিনে আপনি কেন কান্না করছেন ?  উত্তরে হযরত ওমর ফারুক রাদিয়াল্লাহু আনহু বললেন !
هذا يوم العيد وهذا يوم الوعيد وأنا لا ادري أ من المقبولين ام من المطرودين
হ্যাঁ এটা ঈদেরও দিন আর এটা ভীতিপ্রদর্শন করারও দিন এবং আমি জানিনা যে যাদের আমল গ্ৰহন করা হয়েছে আমি তাদের মধ্যে না বহিস্কৃতদের মধ্যে ।  সুবহানাল্লাহ !  যেই মহান ব্যক্তি কে দোজাহানের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আপন জীবদ্দশাতেই জান্নাতের সুসংবাদ দিয়েছেন আর তাঁর এই অবস্থা  ?  তাহলে যারা পবীত্র মাহে রমজান পাওয়ার পরও নেকির কাজে নিজেকে নিয়োজিত করতে পারেন নি, তাদের জন্য কী ঈদ উৎসব সত্যি কারের আনন্দ উৎসব ?  ভাববার বিষয় নয়
কী ? কেবলমাত্র নতুন পোশাক পরিধান করে ঈদ মানানোই কী যথেষ্ট ? আল্লাহ তাআলা আমাদের সকলকে তৌফিক দান করুন  । এ সম্পর্কে হযরত বড় পীর শাইখ আব্দুল কাদের জিলানী রহমাতুল্লাহ আলাইহি কত সুন্দর কথা বলেছেন  দেখুন,
ليس العيد لمن لبس الجديد - بل العيد لمن خاف الوعيد
অর্থাৎ= যে ব্যক্তি শুধুমাত্র নতুন পোশাক পরিধান করেছেন ঈদ তার জন্য নয় , বরং ঈদ তো ঐ ব্যক্তির জন্য যে আল্লাহর শাস্তি কে ভয় করেছেন । তিনি আরো বলেছেন,
"لوگ کہ رہے ہیں کل عید ہے کل عید ہے اور سب خوش ہیں لیکن میں تو جس دن اس دنیا سے اپنا ایمان سلامت لے کر گیا میرے لےء تو وہی دن عید ہوگا"
অর্থাৎ লোকেরা বলে কাল ঈদ, কাল ঈদ আর সবাই আনন্দিত । কিন্তু আমি তো যেদিন এই পৃথিবী থেকে আপন ঈমান সালামতে নিয়ে যাবো । আমার জন্য সেটাই ঈদ হবে ।  সুবহানাল্লাহ !
একজন মোমিনের ঈমান হেফাজত করে দুনিয়া থেকে বিদায় নেওয়াটাই  বড় আনন্দ উৎসব ।
رضا کا خاتمہ بالخیر ہوگا،
اگر رحمت تیری شامل ہے یا غوت اعظم،
 পরিশেষে সকলের কাছে আবেদন করি যে এই করুন ও মুসিবতের সময় তথা লক ডাউন কালে বাজারে বিশেষ করে পোশাক দোকানে ভিড় করে নিজেদের কে বিপদের দিকে ঠেলে দেবেন না । আর নিজেদের কে লজ্জিত করবেন না এবং অপর কে আপনার তথা মুসলমানদের বিরুদ্ধে বলার সুযোগ করে দেবেন না । বরং সরকারি নির্দেশ পালন করুন এতেই দেশ ও জাতির কল্যাণ এবং মঙ্গল হবে । খুব সাবধানে থাকুন, জীবনে বাঁচলে অনেক ঈদ উৎসব পাবেন ।
আল্লাহ তাআলা আমাদের সবাই কে তৌফিক দান করুন । আমীন বে তুফাইলে সাইয়িদিল মুরসালিন ।

খাকসার - মহঃ মইদুল ইসলাম রেজবী
২২ রমজান ১৪৪১ হিজরী ।
Share on Google Plus

About Md Firoz Alam

Ut wisi enim ad minim veniam, quis nostrud exerci tation ullamcorper suscipit lobortis nisl ut aliquip ex ea commodo consequat. Duis autem vel eum iriure dolor in hendrerit in vulputate velit esse molestie consequat, vel illum dolore eu feugiat nulla facilisis at vero eros et accumsan et iusto odio dignissim qui blandit praesent luptatum zzril delenit augue duis.

0 تبصرے:

ایک تبصرہ شائع کریں